ফাইভ মার্ডারের আসামি উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী!

বিশেষ প্রতিনিধি | ০৪ মার্চ ২০১৯ | ৭:১৪ পূর্বাহ্ণ
অ+ অ-

আগামি ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য চতুর্থ ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন চাঞ্চল্যকর পাঁচ খুন মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামি , উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক হানিফ মুন্সী।

জেলার অন্যতম চাঞ্চল্যকর এই হত্যাকান্ডের মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামি হওয়া সত্ত্বেও তিনি আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বৃহত্তম রাজনৈতিক সংগঠন বাংলাদেশ আওয়াম লীগ থেকে মনোনীত হওয়ায় ব্যাপক প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে সাধারণ ভোটারসহ বিভিন্ন মহলে।

গত ৩ মার্চ রোববার আশুগঞ্জ উপজেলার লালপুর গ্রামের বশির আহমেদ নামের এক ব্যক্তি এ ঘটনা উল্লেখ করে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন। এছাড়াও এই অভিযোগের অনুলিপি প্রধান নির্বাচন কমিশনার, পুলিশের আইজিপি, চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে পাঠানো হয়েছে।

লিখিত অভিযোগে বলা হয়, চরচারতলা গ্রামের বাসিন্দা ও আশুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক হানিফ মুন্সী বিগত ২০০৬ সালে একই গ্রামে সংঘটিত চাঞ্চল্যকর পাঁচ খুন মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামি। ২০১৮ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে আদালত। (যার স্মারক নম্বর- ৪৩২ (১১) ১১/ফৌজদারি।

অভিযোগে আরো বলা হয়, ২০০৬ সালের ১৯ নভেম্বর গভীর রাতে তৎকালিন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, চরচারতলা গ্রামের বাসিন্দা রফিকুল ইসলামের বৃদ্ধা মা, গর্ভবতী মেয়ে ও তার স্কুল পড়–য়া ছেলে ও বাড়ির নৈশ প্রহরীকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় দায়ের হওয়া হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি তিনি।

তবে পাঁচ খুন মামলার আসামি প্রকাশ্যে নির্বাচনী সকল কার্যক্রম চালিয়ে গেলেও ব্যবস্থা নিচ্ছে না স্থানীয় প্রশাসন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের একটি সূত্র বলছে, পাঁচ খুন মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা থাকা আসামি হানিফ মুন্সী প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও তাকে গ্রেফতার করছে না পুলিশ। তাকে আইনের আওতায় আনা প্রয়োজন বলে মনে করছেন তারা। তার মনোনয়ন পাওয়ার খবরে তৃণমূল আওয়ামী লীগে ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে।

এদিকে আশুগঞ্জের আটটি ইউনিয়নের সাধারণ জনগণ এবং আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যেও এই নিয়ে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

গত রোববার উপজেলার তালশহর ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে এক জরুরী সভা ডেকে সাতটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও সবকটি (আটটি) ইউনিয়ন শাখা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আনিছুর রহমানকে সমর্থন দিয়েছেন।

তালশহর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু শামা’র সভাপতিত্বে সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য জিয়াউল করিম খান সাজু, দুর্গাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন, আশুগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো. আমির হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য মোবারক আলী চৌধুরী, আবু রিজভী, চরচারতলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আইয়ূব খান, আড়াইসিধা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চেয়ারম্যান সেলিম মিয়া, একই ইউনিয়ন শাখা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মকবুল হোসেন, লালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোর্শেদ মাষ্টার, সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান, শরীফপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুদ্দিন চৌধুরী, তালশহর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হারুনুর রশিদ, সাধারণ সম্পাদক হাফেজ রাসেল, আশুগঞ্জ বন্দর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান বকুল, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও চরচারতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিয়াউদ্দিন খন্দকার, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি জসীম উদ্দিন ব্যাপারী, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক শাহীন সিকদার, যুগ্ম আহবায়ক ও সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. সালাউদ্দিন, তারুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সভাপতি ইদ্রিস হাসান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামসু মিয়াজী, শরীফপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শরীফুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহসম্পাদক আতাউর রহমান কবির, উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আবু মুসা ও উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মারুফ আহমেদ রনি।

এই অভিযোগের বিষয়ে হানিফ মুন্সীর কাছে জানতে চাইলে তার কাছে আদালত থেকে জামিন নেয়ার কাগজপত্র রয়েছে বলে দাবি করেন। তিনি বলেন, ‌’এ মামলাটি কোর্টে বিচারধীন রয়েছে। কোর্ট চুড়ান্ত ফায়সালা দিলে আমি দোষী কিংবা নির্দোষ হিসেবে প্রমানিত হবো। মামলা তো কোন কোন সময় সত্য বা মিথ্যা হতেই পারে। আমি জানি আমি একটা মিথ্যা মামলায় জড়াইছি’।

Facebook Comments

পড়া হয়েছে 3224 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
x