গ্রাম পর্যায়ে দেশে এই প্রথম

সৈয়দ মোহাম্মদ মাশুক আবৃত্তি পরিষদের আত্মপ্রকাশ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক | ২৫ আগস্ট ২০১৮ | ৫:০১ অপরাহ্ণ
অ+ অ-

স্বাধীনতাত্তোর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তুখোড় আবৃত্তি শিল্পী ও বিশিষ্ট কবি সৈয়দ মোহাম্মদ মাশুককে স্মরণ করে জেলার নাসিরনগর উপজেলার গোকর্ণ গ্রামে আত্মপ্রকাশ করেছে আবৃত্তি সংগঠন ‘সৈয়দ মোহাম্মদ মাশুক আবৃত্তি পরিষদ’।

গত শুক্রবার (২৪ অাগস্ট) রাতে সংস্কৃতিকর্মী, গোকর্ণ গ্রামের সৈয়দ জহুর স্মৃতি পাঠাগারের প্রতিষ্ঠাতা সৈয়দ সালাউদ্দিন মুকুল’র উদ্যোগে এ সংগঠনটি আত্মপ্রকাশ করে।

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম রচিত ‘আমি হবো’ কবিতার সমবেত আবৃত্তির মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করেছে এই সংগঠন।

বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের আওতায় সাংগঠনিক চর্চার ইতিহাসে এই প্রথম জেলা ও উপজেলা সদরের বাইরে গ্রাম পর্যায়ে একটি আবৃত্তি সংগঠনের জন্ম হলো।

এ উপলক্ষ্যে গোকর্ণ সৈয়দ ওয়ালিউল্লাহ স্কুল এন্ড কলেজ মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ওস্তাদ জারু মিয়া-অমিয় ভুষণ ঠাকুর সঙ্গীত প্রতিষ্ঠানের শিল্পিদের সমবেত যন্ত্র আয়োজন ও বাউল গানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের শুরু হয়।

সৈয়দ ওয়ালিউল্লাহ স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ সঞ্জিত কুমার দেব এর সভাপতিত্বে ও আবৃত্তি শিল্পী অমিতাভ চক্রবর্ত্তীর সঞ্চালনায় উদ্বোধক হিসাবে ছিলেন, অর্থ মন্ত্রনালয়ের যুগ্ম-সচিব মো. মফিজ উদ্দিন আহমেদ ফরিদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সিরাজগঞ্জ ক্যাপ্টেন মনসুর আলী মেডিকেল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ডা.আমিরুল ইসলাম চৌধুরী দারা। প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের নির্বাহী সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিশিষ্ট বাচিক শিল্পী মো. মনির হোসেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট লেখক-গবেষক অধ্যাপক মানবর্দ্ধন পাল, জেলা উদীচীর সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম চৌধুরী স্বপন, আবৃত্তিশিল্পি উত্তম কুমার দাস।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো.খলিলুর রহমান শুভ্র। ধন্যবাদ বক্তব্য রাখেন সভাপতি সৈয়দ সালাউদ্দিন মুকুল।

একক আবৃত্তি করেন সুলতানা পারভীন দীপালী, উত্তম কুমার দাস, তন্ময় কুমার চক্রবর্ত্তী, রেজা-ই রাব্বী হাদিন।

বাংলাদেশ সময় : ২২৪৫ ঘন্টা, অাগস্ট ২৫, ২০১৮

Facebook Comments

পড়া হয়েছে 1345 বার
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
x